• ঢাকা, বাংলাদেশ মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:২৯ অপরাহ্ন

রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের দু’দিন ব্যাপী সার্ধশতবর্ষ পূর্তি উৎসব

রিপোর্টার নাম:
আপডেট শুক্রবার, ২১ জুলাই, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজশাহীর সবচেয়ে প্রাচীন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও জনকল্যাণমূলক সংগঠন রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশন-এর প্রতিষ্ঠার সার্ধশতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে দু’দিনব্যাপী এক উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার থেকে রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে।

প্রধান অতিথি হিসেবে শুক্রবার সকাল ১০টায় বেলুন, ফেস্টুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. অরুণ কুমার বসাক। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর সার্ধশতবর্ষপূর্তির কেক কাটেন অতিথিবৃন্দ। পরে পাঁচ গুণিজনকে সম্মাননা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে তাঁদের উত্তরীয় পরিয়ে দেওয়া হয়। এরপর তাঁদের হাতে সম্মাননা স্মারক এবং সম্মানীর অর্থ তুলে দেওয়া হয়।

এবার যারা সংবর্ধনা পেয়েছেন তারা হলেন- মুক্তিযুদ্ধে অধ্যাপক মু. শামসুল আলম (বীর প্রতীক), সাহিত্যে কথাশিল্পী সেলিনা হোসেন, অর্থনীতিতে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক সনৎকুমার সাহা, সঙ্গীতে ওস্তাদ আবদুল আজিজ বাচ্চু (মরণোত্তর) ও চিকিৎসায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য জাতীয় অধ্যাপক ডা. মাহমুদ হাসান। ওস্তাদ আবদুল আজিজ বাচ্চুর (মরণোত্তর) সম্মাননা গ্রহণ করেন তাঁর সহধর্মিনী। এরপর সংবর্ধনাপ্রাপ্ত গুণিজনেরা নিজেদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহীর প্রাক্তন জেলা প্রশাসক ও অবসরপ্রাপ্ত সচিব একেএম শামসুদ্দীন, কবি মো. আমিনুল ইসলাম, কথাশিল্পী সেলিনা হোসেনের স্বামী বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন ও রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল খালেক। সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক ও রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শামীম আহমেদ। স্বাগত বক্তব্য দেন সাধারণ সম্পাদক তসিকুল ইসলাম রাজা।

উপস্থিত ছিলেন- অ্যাসোসিয়েশনের সহসভাপতি কবি রুহুল আমিন প্রামানিক, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আকবারুল হাসান মিল্লাত প্রমুখ। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বিকালে ‘রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশন: সার্ধশতবর্ষের অর্জন’ শীর্ষক একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়। সন্ধ্যায় বসে রাজশাহী অঞ্চলের বিয়ের গানের আসর। দ্বিতীয় দিন শনিবার সকালে স্থানীয় কবিদের ছড়া ও কবিতা পাঠের আসর, দুপুরে সেমিনার এবং সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৮৭২ সালের ২১ জুলাই বৃহত্তর রাজশাহীর রাজা-বাদশাগণ এ অঞ্চলের কল্যাণে রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। রাজশাহী কলেজ ও বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর প্রতিষ্ঠায় সহায়তা, রাজশাহী শহরে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য ঢোপকল স্থাপনসহ আরও নানা ধরনের জনহিতকর কাজ করে এই অ্যাসোসিয়েশন।

১৮৯২ সালের ১২ নভেম্বর রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের এক সাহিত্যসভায় বিশ^কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাঁর ‘শিক্ষার হেরফের’ শীর্ষক প্রবন্ধটি পাঠ করেন। ঐতিহ্যবাহী এই সংগঠন এবার নানা আয়োজনে প্রতিষ্ঠার সার্ধশতবর্ষ পূর্তি উৎসব পালন করছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো নিউজ