• ঢাকা, বাংলাদেশ শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্ট্রিকারযুক্ত গাড়ি থেকে ৬মণ গাঁজা উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩

রিপোর্টার নাম:
আপডেট সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্ট্রিকারযুক্ত গাড়িতে গাঁজা বহনের সময় ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে রাজশাহী মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর গোয়েন্দা সদস্যরা। সোমবার সকাল ৬টার দিকে নাটোর জেলার সিংড়া থানার লালোর বাজারে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় দুটি গাড়ি থেকে ২৪০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার মৃত নুরুজ্জামানের ছেলে নুর আলিম সরকার মিলন (৩৭), আবু হোসেনের ছেলে মোমিনুল ইসলাম (৩৬) ও জয়নাল আবেদীনের ছেলে হোসাইন আহম্মেদ (২৩)। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা বিভাগের উপপরিচালক জিললুর রহমান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, মাদক চোরাচালানে ব্যবহৃত মূল্যবান গাড়িতে ব্যবহার করা হচ্ছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশ বাহিনীসহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের স্ট্রিকার। চক্রটি দীর্ঘ দীর্ঘ সময় ধরে বিভিন্ন জায়গায় মাদক সরবরাহ করে আসছে এমন তথ্য মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের নিকট আসে। তারা বিভিন্ন কৌশলে তাদের ব্যবসা পরিচালনা করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার সকালে একটি গোয়েন্দা দল নাটোরের লালোর বাজারে অবস্থান নেয়। এমন সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের স্টিকারযুক্ত একটি গাড়ীতে তল্লাসী করে গাড়ীর মাঝখানে সিটের পিছনে রক্ষিত টয়োটা মাইক্রোবাস থেকে পাঁচটি বড় প্লাষ্টিক বস্তা উদ্ধার করা হয়। সেখানে ১৫০ কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। একই সময় একটি হায়েস টয়োটা মাইক্রোবাস তল্লাশী করে গাড়ীর ভিতরে পেছনের সিটের উপরে তিনটি প্লাষ্টিক বড় বস্তার ভিতর রক্ষিত ৯০ কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। সর্বমোট ২৪০ গাঁজা কেজি এবং মাদক পরিবহন কাজে ব্যবহৃত গাড়ি দুটি জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের বিরদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের গোয়েন্দা বিভাগের উপপরিচালক জিললুর রহমান আরো বলেন, মাদক পাচারকারীরা কৌশল হিসেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্টিকার ব্যবহার করেছিলো। এর আগেও এভাবে সরকারি স্টিকারযুক্ত গাড়িতে গাঁজা ধরা হয়েছে। মাদক চোরাকারবারীরা নতুন এই পদ্ধতি ব্যবহার করে গাঁজা পাচারের চেষ্টা চলাচ্ছে। এ অবস্থায় এধরনের গাড়ির উপর গোয়েন্দা নজরদারী বাড়ানো হয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরিতে আরো নিউজ