Home » অপরাধ ও আইন » চতুর্থ শ্রেণির বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছাত্রী ধর্ষণের শিকার
চতুর্থ শ্রেণির বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

চতুর্থ শ্রেণির বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ০
রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম এলাকায় এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার রাতে শিক্ষার্থীর বাবা নিজে বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে অভিযোগ করা হয়েছে, বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুটি (১৪) মনিগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী। সম্প্রতি সকাল ১১টার সময় বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার সময় একই গ্রামের দুই সন্তানের জনক মিজানুর রহমান মিজান (৩৫) তার পথরোধ করে। বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে পাশের একটি গম খেতে নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এরপর তার হাতে ১০০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে স্কুলে পাঠিয়ে দেয় মিজান। মিজান ওই এলাকার মৃত আজাহার আলীর ছেলে।

ঘটনার দিন স্কুল থেকে শিশুটি বাড়ি এলে তার আচরণে পরিবর্তন লক্ষ্য করে তার মা। এ অবস্থায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে মায়ের কাছে ঘটনাটি জানায়। পর দিন মিজানের চাচাতো ভাই বাদশা বিষয়টির বিচার করে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে পুলিশে জানাতে নিষেধ করেন। কিন্ত ঘটনার ১৫ দিন পেরিয়ে গেলেও স্থানীয়ভাবে এ বিষয়ে কোন সমাধান না হওয়ায় অবশেষে শিশুটির বাবা বাদি হয়ে বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

শিক্ষার্থীর বাবা জানান, আমি একজন ভ্যানচালক। আমার ও আমার মেয়ের সম্মানের কথা চিন্তা করে প্রথমে কাউকে কিছু বলিনি। পরে ঘটনাটি আস্তে আস্তে এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়। এর বিচার চাইলে আসামি পক্ষ উল্টো আমাকে হুমকি দেওয়ায় নিরুপায় হয়ে আমি থানায় মামলা করেছি।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহাসীন আলী জানান, প্রতিবন্ধী ওই শিক্ষার্থীকে সাথে করে  এসে তার বাবা থানায় মামলা করেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছিল। মামলা করার খবর পেয়ে আসামি পালিয়েছে। আমরা তাকে ধরার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছি।

বাংলার কথা/নুরুজ্জামান/ফেব্রুয়ারি ২২, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*