Home » উত্তরের খবর » প্রতিবন্ধিদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলা হবে : নুরুজ্জামান আহমেদ
প্রতিবন্ধিদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলা হবে : নুরুজ্জামান আহমেদ

প্রতিবন্ধিদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলা হবে : নুরুজ্জামান আহমেদ

তিতাস আলম, লালমনিরহাট থেকে ০
‘প্রতিবন্ধীদের বিষয়ে এর আগে কোনো নীতিমালা ছিলো না। এরই মধ্যে নীতিমালা করা হয়েছে। নতুন মন্ত্রীসভার বৈঠকে এটি পাশ হলে প্রতিবন্ধীদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলা সহজ হবে। বিগত দিনে প্রতিবন্ধীদের জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা ছাড়া কোনো সরকারই কল্যাণমূখি কর্মসূচি গ্রহণ করেনি। প্রতিবন্ধী ও তাদের সন্তানদের জন্য বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে শেখ হাসিনার সরকার। এসব কর্মসূচি বাস্তবায়িত হলে প্রতিবন্ধীরা সমাজের মূল স্রোতধারায় ফিরে আসবে।’

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ রোববার (১৩ জানুয়ারি) লালমনিরহাট সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন, সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, যে কোনো সময় যে কোনো প্রয়োজনে যে কেউ আমার সঙ্গে দেখা করতে পারেন। আমি জনগণের মানুষ। ইউপি চেয়ারম্যান থেকে জনগণের ভোটে এমপি হয়েছি। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার কর্মদক্ষতায় খুশি হয়ে করুণা করে লালমনিরহাট জেলাবাসীকে পূর্ণমন্ত্রী উপহার দিয়েছেন।

রোববার দুপুরে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ লালমনিরহাট সার্কিট হাউসে পৌঁছালে জেলা পুলিশের একটি চৌকসদল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। পরে মন্ত্রী সার্কিট হাউসের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন, সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় যোগ দেন।

সভায় মন্ত্রী বলেন, লালমনিরহাট একটি অবহেলিত ও পশ্চাৎপদ জেলা। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় থেকে দেশের কোনো উন্নয়ন করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের দৃশ্যমান সব উন্নয়ন করেছেন। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মহাজোটের পক্ষে মানুষ গণ রায় দিয়েছে। এজন্য জেলাবাসীর প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

 

লালমনিরহাটকে মডেল জেলা গঠনে জেলা প্রশাসন, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ সমাজের প্রতিটি মানুষের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন নুরুজ্জামান আহমেদ। তিনি বলেন, সাংবাদিকরা সমাজের দর্পন। আপনারা বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করে দেশের উন্নয়নে অংশ নিন। মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ পরিবেশন করে সমাজে বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। আমি সামাজিক মানুষ। আমার সুনাম ক্ষুন্ন করবেন না। লালমনিরহাট বিমানবন্দর ও মোগলহাট স্থলবন্দর চালুসহ জেলাবাসীর প্রাণের দাবিগুলো আমার জানা আছে। জেলার সার্বিক উন্নয়নে যা দরকার, তার সব করা হবে।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ, পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক, জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সিরাজুল হক, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আশরাফ হোসেন বাদল, জেলা যুবলীগ সভাপতি মোড়ল হুমায়ুন কবির, রঅলমনিরহাট পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী তপন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও ছাত্রলীগ সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন।

নুরুজ্জামান আহমেদ সমাজকল্যাণ মন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের পর নিজ জেলা লালমনিরহাটে এটিই তার প্রথম সফর। এর আগে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে আসেন তিনি। সেখান থেকে সড়ক পথে দুপুরে সার্কিট হাউজে মতবিনিময় সভায় যোগ দেন। এরপর তিনি পৈত্রিক বাড়ি জেলার কালীগঞ্জে যান। সাতদিন জেলায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে তার।

বাংলার কথা/জানুয়ারি ১৩, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*