Home » উত্তরের খবর » গোদাগাড়ীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আ’লীগ নেতার মৃত্যু 
গোদাগাড়ীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আ’লীগ নেতার মৃত্যু 

গোদাগাড়ীতে নির্বাচনী সহিংসতায় আহত আ’লীগ নেতার মৃত্যু 

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) প্রতিনিধি ০

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রতিপক্ষের হামলায় ইসমাইল হোসেন (৪৯) নামে আহত এক আওয়ামী লীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মারা যান তিনি। এ নিয়ে রাজশাহীতে নির্বাচনী সহিংসতায় মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালে তিনজনে।

 

নিহত ইসমাইল হোসেন গোদাগাড়ী উপজেলার পালপুর-ধরমপুর গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে। তিনি পালপুর-ধমরপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে আওয়ামীলীগ প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন।

 

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক দেওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখতার হোসেন জানান, রোববার দুপুরে ভোটগ্রহণ চলাকালে রাজশাহী-১ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের গোদাগাড়ীর পালপুর-ধমরপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীরা ইসমাইল হোসেনকে পিটিয়ে আহত করে। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে ইসমাইল মারা যান।

 

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার (সদর) ইফতে খায়ের আলম জানান, নিহত ইসমাইলের মরদেহ সোমবার দুপুরে নিকটাত্মীয়দের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় দামকুড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের হবে।

 

এর আগে রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালে রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের মোহনপুরের পাকুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মেরাজুল ইসলাম এবং রাজশাহী-২ (গোদাগাড়ী-তানোর) আসনের তানোর উপজেলার মোহাম্মদপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে মোদাচ্ছের আলী নামে দুই আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী প্রতিপক্ষের হামলায় ভোটকেন্দ্রেই নিহত হন। এই ঘটনায় সংশ্লিষ্ট থানায় আলাদা হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

বাংলার কথা/ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*