Home » উত্তরের খবর » ‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন’
‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন’

‘মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন’

নিজস্ব প্রতিবেদক ০
মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধান তথ্য কর্মকর্তা কামরুন নাহার। কোনটা খবর এবং কোনটি নয়, তা যাচাই করে পরিবেশন করুন। এর ফলে অপসাংবাদিকতা দূর করা যাবে।

আজ ১৫ মার্চ বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় রাজশাহী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘বাংলাদেশ স্বল্পোন্ন স্ট্যাটাস থেকে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য ও বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন’ বিষয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন,  ভুল তথ্য বা ভূয়া খবরে বিভ্রান্তি এড়াতে এই মিডিয়া লিটারেসী। এতে করে সাংবাদিকরা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে প্রকৃত খবর উপস্থাপন করতে পারবেন। এতে খবরে বস্তুনিষ্ঠতা আসবে। যে কোন ঘটনা জানার পর তা থেকে প্রকৃত খবর খুঁজে বের করাই হলো এ প্রশিক্ষণের উদ্দেশ্য। সাংবাদিকরা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বা পিআইডি’র মাধ্যমে এ প্রশিক্ষণে অংশ নিতে পারবেন।

মতবিনিময়কালে রাজশাহী জেলা প্রশাসক এস. এম. আব্দুল কাদের, সিনিয়র উপপ্রধান তথ্য অফিসার ফায়জুল হক, সিনিয়র তথ্য অফিসার মোবাস্বেরা কাদেরী, রাজশাহী আঞ্চলিক তথ্য অফিসের সিনিয়র তথ্য অফিসার ফারুক মোঃ আব্দুল মুনিমসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

কামরুন নাহার বলেন, বর্তমান সরকার জিডিপির হার, মাথাপিছু আয়, মানবসম্পদ উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়নসহ অর্থনৈতিক সুচকবৃদ্ধির লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত স্ট্যাটাস থেকে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জন করেছে। তিনি বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে এদেশকে উন্নত দেশের সারিতে উন্নীত করার পরিকল্পনা এ সরকারের রয়েছে। প্রধান তথ্য অফিসার সাংবাদিকদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে লালন করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম প্রচারের আহবান জানান।

মতবিনিময় সভায় রাজশাহীতে কর্মরত বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা অংশ নেন।

বাংলার কথা/মার্চ ১৫, ২০১৮

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*