Today September 21, 2017, 9:12 am |
Home » উত্তরের খবর » রংপুরে অবৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স ॥স্বীকারোক্তি দিলেন শামসুল

রংপুরে অবৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স ॥স্বীকারোক্তি দিলেন শামসুল

রংপুর অফিস ০

রংপুর ডিসি অফিসের অফিস সহকারী শামসুল ইসলাম অবৈধ অস্ত্রের লাইসেন্স পাইয়ে দেয়ার বিষয়ে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছেন। শুক্রবার বিকেলে রিমান্ড শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসানের আদালতে এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি। বিষয়টি জানিয়েছেন রংপুরের দুদক উপ-পরিচালক মোজাহার আলী।

তিনি জানান, শামসুল ইসলামকে আদালতে হাজির করা হলে তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। শামসুল ইসলামকে দুই দফায় ৮ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি অবৈধ অস্ত্র ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। এসময় তিনি অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত আরও কয়েকজনের নামও প্রকাশ করেছেন, তবে তদন্তের স্বার্থে জড়িতদের নাম প্রকাাশ করা যাচ্ছে না। প্রাথমিক ভাবে তদন্তে যাদের নাম উঠে এসেছে তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছেন ঐ কর্মকর্তা ।

তিনি আরো জানান, জবানবন্দিতে শামসুল ৩’শয়ের বেশি ভুয়া অস্ত্রের লাইসেন্স দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন। প্রতিটি লাইসেন্সের জন্য তিনি ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা করে নিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন। শামসুল ইসলাম ভুয়া অস্ত্রের লাইসেন্স দিয়ে প্রায় ১৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

উল্লেখ্য রংপুর ডিসি অফিসের জেএম শাখার অফিস সহকারী শামসুল ইসলাম বিভিন্ন এলাকার মানুষের ভুয়া নাম ঠিকানা ব্যবহার করে রংপুরের ডিসি সই জাল করে কয়েক শতাধিক ভুয়া আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্স দিয়েছেন। বিষয়টি প্রকাশ পেলে ডিসি অফিসের জেএম শাখায় তল্ল¬াশি চালিয়ে ১৫টি অগ্নেয়াস্ত্রের ভুয়া লাইসেন্স ১১টি আগ্নেয়াস্ত্রের লাইসেন্সের বিপরীতে নগদ ৭ লাখ ১১ হাজার টাকা, এফডিআর ও ২ লাখ টাকার সঞ্চয়পত্র উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা অমূল্য চন্দ্র রায় বাদি হয়ে কোতয়ালী থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটি পরে দুদকে স্থানান্তর করা হয় এবং গত ৬ জুলাই তাকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে। প্রথম দফার ৫দিন ও পরে আরো ৩ দিনের রিমান্ড নেয় দুদক। রিমান্ড শেষে সে আদালতে স্বীকারোক্তি জবানবন্দি দেন।

রংপুর কোতয়ালী থানার ওসি এবিএম জাহিদুল ইসলাম জানান, শামসুল ইসলামের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার কোতোয়ালী থানার এসআই মামুন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।

বাংলার কথা/তিতাস আলম/১৫ জুলাই ২০১৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে
সম্পাদক: শ.ম সাজু
সহকারী সম্পাদক (রংপুর বিভাগ): তিতাস আলম
২০৯ (৩য় তলা), বোয়ালিয়া থানার মোড়, কুমারপাড়া, রাজশাহী। ফোন: ০১৯২৭-৩৬২৩৭৩, ই-মেইল: banglarkotha.news@gmail.com