Today January 20, 2018, 8:59 am |
Home » উত্তরের খবর » প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ভুয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান!

প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ভুয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান!

লালমনিরহাট প্রতিনিধি ০
চলমান প্রাথমিক সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় ভুয়া পরীক্ষার্থীর পর এবার ভুয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের খবর পাওয়া গেছে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায়। ‘মাঠেরপাড় বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’ নামের ওই ভুয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হয়ে ৪ জন পরীক্ষার্থী ইতোমধ্যে ৪টি পরীক্ষায় অংশগ্রহণও করেছে। বিষয়টি জানাজানি হলে গত বৃহস্পতিবার ৫ম পরীক্ষার দিন ওই পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা শুরুর কিছু আগেই সুকৌশলে কেন্দ্র ত্যাগ  করে। এ ঘটনার পর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন সচেতন মহল।

হাতীবান্ধা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে চলমান প্রাথমিক সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ডিআর ভুক্ত হয়ে সিংগিমারী ইউনিয়নের বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সমাপনী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে। এর মধ্যে ‘মাঠেরপাড় বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়’ নামের একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হয়ে মাসুদ রানা, আঁখি আক্তার, নুরাইয়া খাতুন ও জয়া খাতুন নামে ৪ জন পরীক্ষার্থী উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার সহ সংশ্লিষ্টদের স্বাক্ষরিত প্রবেশপত্র নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। যাদের রোল নং যথাক্রমে ৫৯৫৩, ৫৯৫৪, ৫৯৫৫ ও ৫৯৫৬।

হাতীবান্ধা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সচিব নুরুল ইসলাম মিঠুল জানন, ‘গত বুধবার উপজেলা নির্বাহী  অফিসার আমিনুল ইসলাম পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় ওই শিক্ষার্থীদের বিষয়ে প্রশ্ন তুলেন এবং  তাদের বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে বলেন। পরদিন বৃহস্পতিবার পরীক্ষা শুরুর আগে আমি ওই ৪ জন পরীক্ষার্থীকে  অফিসে ডেকে পাঠাই। কিন্তু তারা অফিসে না এসে সুকৌশলে কেন্দ্র থেকে পালিয়ে যায়।’

হাতীবান্ধা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্বে থাকা সহকারি শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম আযাদ বলেন, ‘বিষয়টি অবগত হওয়ার পর আমরা সরেজমিন পরির্দশন করেছি। কিন্তু মাঠেরপাড় বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নামে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুঁজে পাইনি।’ অস্তিত্বহীন একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হয়ে শিক্ষার্থীরা কি ভাবে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের ডিআর ভুক্ত হয় এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ডিআর ভুক্তির সময় আমি দায়িত্বে ছিলাম না। তবে, বিষয়টি আমরা গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখছি।’ তিনি আরও বলেন, তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাংলার কথা/ইলিয়াস বসুুনিয়া পবন/নভেম্বর ২৫, ২০১৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে
সম্পাদক: শ.ম সাজু
সহকারী সম্পাদক (রংপুর বিভাগ): তিতাস আলম
২০৯ (৩য় তলা), বোয়ালিয়া থানার মোড়, কুমারপাড়া, রাজশাহী। ফোন: ০১৯২৭-৩৬২৩৭৩, ই-মেইল: banglarkotha.news@gmail.com