Today September 21, 2017, 1:52 am |
Home » উত্তরে বেড়ানো » নাটোরের উত্তরা গণভবনে দর্শনার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

নাটোরের উত্তরা গণভবনে দর্শনার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

নাটোর সংবাদদাতা ০

বিশেষ নিরাপত্তার স্বার্থে ও সর্তকতার জন্যনাটোর উত্তরা গণভবন থেকে স্বাধীনতা বিরোধী কুখ্যাত রাজাকার মোনায়েম খানের নাম ফলক অপসারণের পর পরই সাধারণ দর্শনার্থীদের প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। শনিবার সকাল ১১ টার সময় নাম ফলক অপসারণের পর দুপুর ১ টা থেকে দর্শনার্থীদের প্রবেশে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। ফলে আগে থেকেই কোন ঘোষণা বা নোটিশ না দেওয়ায় বিপত্তীতে পড়ছেন দুর- দুরান্ত থেকে আগত দর্শনার্থীরা।

 

অনেকই উত্তরা গণভবনে প্রবেশ করতে না পেরে তারা ফিরে যাচ্ছেন। নাম ফলক ভাঙ্গার পর পরই উত্তরা গণভবনের টিকিট কাউন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয। স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদেরও প্রবেশে বাধা রয়েছে।

 

দর্শনার্থী তিন বন্ধু সাজ্জাত, শান্ত ও পলাশ জানান, উত্তরা গণভবন দেখতে তারা খুলনা থেকে এসেছেন। কিন্ত বন্ধ থাকায় তারা প্রবেশ করতে না পেরে ফিরে যাচ্ছেন। একই কথা জানালেন, নোয়াখালি থেকে আসা দম্পত্তি রাশেদুল ইসলাম ও সীমা আক্তার। তারা জানান, সকাল থেকে তারা চেষ্টা করছিলেন গণভবনে ঢোকার।কিন্তু মোনায়েম খানের না ফলক ভাঙ্গার জন্য তারা সেখানে যেতে পারেননি। পরে বিকেলেও তারা প্রবেশ করতে না পেরে ফিরে যাচ্ছেন। একই অভিযোগ করেন স্থানীয় দর্শনার্থীরাও। তারা গেইটে গেলে পুলিশ তাদের ফিরিয়ে দিচ্ছেন।

 

উত্তরা গণভবনের গেইটে ডিউটিরত নিরাপত্তা প্রহরী রুবেল আলী জানান, উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে তিনি দর্শনার্থীদের ভিতরে প্রবেশে বাধা দিচ্ছেন। এটা শুধু আজকের জন্যই করা হয়েছে। তবে কর্তৃপক্ষ অনুমতি দিলে তাদের ভিতরে যেতে বাধা নেই।

 

নাটোরের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ড. একে আজাদুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, দেশ স্বাধীন হলেও এখনো স্বাধীনতা বিরোধীরা সক্রিয়। আর মোনায়েম খান যেহেতু পাকিস্তানের গভর্নর ও স্বাধীনতা বিরোধী ব্যাক্তি ছিলেন, তার অনুসারীরা এখনও বিদ্যমান রয়েছে। তাই তার নাম ফলক ভাঙ্গার কারনে আবেগের বশবর্তী হয়ে ওই চক্র উত্তরা গণভবনে হামলা চালাতে পারে ।
এজন্য বিশেষ নিরাপত্তা ও সর্তকতার জন্য আজকে সাময়িক ভাবে গণভবনে প্রবেশাধিকারে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে এবং টিকিট কাউন্টার বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে রোববার থেকে যথারীতি পুর্বের মত চালু থাকবে।

 

বাংলার কথা/ইউনুস/জুলাই১৬, ২০১৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে
সম্পাদক: শ.ম সাজু
সহকারী সম্পাদক (রংপুর বিভাগ): তিতাস আলম
২০৯ (৩য় তলা), বোয়ালিয়া থানার মোড়, কুমারপাড়া, রাজশাহী। ফোন: ০১৯২৭-৩৬২৩৭৩, ই-মেইল: banglarkotha.news@gmail.com