Today December 13, 2017, 2:01 am |
Home » জানা-অজানা » ঘুম থেকে জাগার পর শিশুকে বুকের দুধ দিন

ঘুম থেকে জাগার পর শিশুকে বুকের দুধ দিন

ডা. সজল আশফাক ০
জন্মের পর পরই শিশুকে বুকের দুধ দিতে হবে। বুকের দুধই শিশুর প্রথম খাবার হওয়া উচিত। জন্মের পর অনেকেই শিশুর মুখে চিনি ও মিছররি পানি কিংবা মধু দিয়ে থাকেন। এটি ঠিক নয়। এতে শিশু সেই সময়ের প্রয়োজনীয় পুষ্টি থেকে বঞ্চিত হয়।

এ ছাড়া শিশুর পরিপাকতন্ত্র মধুর মতো খাবার হজমের উপযুক্ত থাকে না। তাই এতে কিছুটা বিপত্তির ঝুঁকি থাকে।

নবজাতক জন্মের পর পরই বুকের দুধ টানতে চায় না। তবে অভ্যাস করাতে হবে। জন্মের প্রথম দুই-তিনদিন শিশু যে দুধ পায় তার নাম শালদুধ। এই শালদুধ শিশুর শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে। কারণ এই শালদুধ শিশুর জন্য খুবই জরুরি। শাল দুধকে বলা হয় শিশুর প্রথম টিকা। কারণ, এই শালদুধ শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে, শিশুকে কোষ্ঠকাঠিন্য ও জন্ডিস থেকে রক্ষা করে। আর তাই জন্মের পর চার থেকে ছয় ঘণ্টার মধ্যেই শিশুকে বুকের দুধ দেওয়া উচিত।

ঘুম থেকে জাগার পরই শিশুকে বুকের দুধ দেওয়া যেতে পারে। অনেকেই শিশুকে কখন বুকের দুধ দেবেন, কীভাবে দেবেন- এ নিয়ে ভাবেন। শিশুকে বুকের দুধ দেওয়ার সহজ পদ্ধতি হচ্ছে চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ করা। অর্থাৎ যখনই ক্ষুধা লাগবে বা ক্ষুধার কারণে শিশু কাঁদবে কিংবা দীর্ঘ ঘুমের পর জেগে উঠবে তখনই বুকের দুধ দেওয়া সমীচীন। তবে শিশুরা সাধারণত দুই তিন ঘণ্টা পর খেতে চায়। প্রতিবারের ফিডিং ১০ থেকে ১৫ মিনিটের বেশি হওয়া উচিত নয়।

বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় শিশুর মাথা উপরে রেখে কিংবা কোলে নিয়ে খাওয়াতে হবে। তা না হলে চিৎ করে শুইয়ে খাওয়ানোর কারণে মুখের ভেতর দিয়ে দুধ কানে চলে যেতে পারে এবং কান পেকে যেতে পারে।

জন্মের প্রথম দিনটিতে অনেক সময় নানা কারণে নবজাতক পর্যাপ্ত বুকের দুধ নাও পেতে পারে। এ পরিস্থিতিতে উদগ্রীব হওয়ার কিছু নেই। এ সময়ে অনেকেই উৎকণ্ঠার বশবর্তী হয়ে শিশুর মুখে ফিডারে কৌটার দুধ তুলে দেন। এটা ঠিক নয়। এ সময়ে কৌটার দুধ যদি দিতেই হয়, তবুও ফিডারে দেয়া যাবে না। চামচে করে দিতে হবে, তাও মাত্র সেই দিনটির জন্য। এ বিষয়ে শিশু বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া কিছু করা ঠিক হবে না।

প্রথম দিন শিশুকে ফিডার দিলে সেই শিশু পরবর্তীকালে আর বুকের দুধ টানতে চায় না। কারণ, ফিডারের চেয়ে বুকের দুধ টেনে পান করাটা তার কাছে কষ্টসাধ্য মনে হয়। এ জন্য শিশুকে ফিডারের অভ্যাস না করাই ভালো। এ ছাড়া ফিডারের জন্য পেটের পীড়া হওয়ার ঝুঁকি থাকে। বুকের দুধে সেই রকম ঝুঁকি নেই বললেই চলে।

প্রতিবার শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর পর তাকে উপুড় করে কাঁধের ওপর মাথা রেখে পিঠে হালকা চাপড় দিতে হবে। কিছুক্ষণ এভাবে করার পর শিশু ঢেঁকুর তুলবে। ঢেঁকুর তোলার পর শিশুকে শুইয়ে দিতে হবে। এই কাজটি করলে খাওয়ার পর আর বমি হবে না।

লেখক : সহযোগী অধ্যাপক, হলিফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ।

সূত্র: এনটিভি অনলাইন/বাংলার কথা/নভেম্বর ১৭, ২০১৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে
সম্পাদক: শ.ম সাজু
সহকারী সম্পাদক (রংপুর বিভাগ): তিতাস আলম
২০৯ (৩য় তলা), বোয়ালিয়া থানার মোড়, কুমারপাড়া, রাজশাহী। ফোন: ০১৯২৭-৩৬২৩৭৩, ই-মেইল: banglarkotha.news@gmail.com