Today November 25, 2017, 7:36 am |
Home » জানা-অজানা » কোরবানীর মাংস রান্নার স্বাস্থ্যসম্মত ১৩ উপায়

কোরবানীর মাংস রান্নার স্বাস্থ্যসম্মত ১৩ উপায়

ডা. শাকিল মাহমুদ ০

খাবারের মূল লক্ষ্য হলো সুস্থ, সবল, কর্মক্ষম ও রোগমুক্ত থাকা। তবে খাদ্য ও পুষ্টি সম্বন্ধে অনেকের সঠিক ধারণা না থাকার কারণে খাবার খেয়েও আমরা সঠিক পুষ্টিগুণ পাই না। কারণ, আমাদের রান্না পদ্ধতিতে বেশির ভাগ পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

 

কোরবানির ঈদে গরু, খাসির মাংস আমরা অনেকেই খাব। এসব মাংস উচ্চ মানের প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে। এ ছাড়া আয়রন, ভিটামিন ও অন্যান্য মিনারেলের ঘাটতি পূরণ করতে সাহায্য করে। তাই কোরবানির ঈদে গরু বা খাসির মাংস থেকে সঠিক পুষ্টিগুণ পেতে স্বাস্থ্যকর উপায়ে মাংস রান্না করতে হবে।

 

১) কোরবানির মাংস রান্না করার প্রায় আধা ঘণ্টা পর্যন্ত স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখা উচিত। এতে রান্না করার সময় মাংসের ওপরের ও অভ্যন্তরীণ অংশ ভালোভাবে সেদ্ধ হয়। না হলে ওপরের অংশ ভালোভাবে রান্না করা হলেও ভেতরের অংশ কাঁচা থেকে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

 

২) মাংস কাটার সময় চর্বি কেটে ফেলে দিয়ে রান্না করতে হবে। এতে ক্ষতিকর চর্বি কমে যাবে। স্বাস্থ্যঝুঁকি কমবে।

 

৩) মাংস রান্নার সময় জলপাইয়ের তেল বা সূর্যমুখীর তেলে রান্না করলে পুষ্টিগুণ ঠিক থাকবে।

 

৪) মাংস রান্নার সময় আলাদাভাবে ঘি, মাখন, পাম অয়েল, টেস্টিং সল্ট, ক্ষতিকর সস, রং ব্যবহার করবেন না।

 

৫) মাংস রান্নার সময় আগে সিদ্ধ করে পানি ফেলে নিন। কারণ, সিদ্ধ করার সময় মাংস থেকে লুকানো চর্বি পানিতে চলে আসে। এই পানি ফেলে দিলে মাংসের চর্বি অনেকটাই কমে আসে।

 

৬) মাংস রান্নার সময় পাতলা ও ছোট টুকরা করুন। এতে চর্বি কমে যাবে। এ ছাড়া ঢাকনা দিয়ে রান্না করুন। এতে পুষ্টিগুণ ঠিক থাকবে।

 

৭) মাংস রান্নার সময় অল্প তাপে রান্না করুণ। বেশি তাপে রান্না মাংসের পুষ্টিগুণ কমে যায় এবং ক্ষতিকর উপাদান তৈরি হয়ে স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ে।

 

৮) মাংস বেশি তেলে ভাজা যাবে না। এতে পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়।

 

৯ ) মাংস রান্নার সময় কাঁচামরিচ, বেশি রসুন, হলুদ, ভেষজ গুণের মসলা বেশি ব্যবহার করুন।

 

১০) রান্না করার পর মাংস বার বার গরম করবেন না। এতে মাংসে ক্ষতিকর উপাদান তৈরি হয়, পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়।

 

১১) কয়লার আগুন দিয়ে মাংস রান্না হলে ক্ষতিকর আরোমেটিক হাইড্রোকার্বন তৈরি হয়। এতে স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ে। তাই সাবধান।

 

১২) গ্রিল করা মাংসে চর্বি প্রায় থাকে না বললেই চলে। রোস্ট বা অন্য কোনোভাবে রান্না না করে তাই গ্রিল খাওয়া অনেক স্বাস্থ্যকর।

 

১৩) সাদা সিরকা, লেবুর রস ও লবণ মাখিয়ে কাঁচা মাংস ভিজিয়ে রাখুন সারা রাত। এভাবে রাখলে মাংসের প্রায় ৮০ শতাংশ চর্বিই চলে যায়।

 

লেখক : সহকারী অধ্যাপক, গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ, সাভার, ঢাকা।

 

 

সূত্র: এনটিভি অনলাইন/বাংলার কথা/সেপ্টেম্বর ০৩, ২০১৭

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি: ড. প্রদীপ কুমার পান্ডে
সম্পাদক: শ.ম সাজু
সহকারী সম্পাদক (রংপুর বিভাগ): তিতাস আলম
২০৯ (৩য় তলা), বোয়ালিয়া থানার মোড়, কুমারপাড়া, রাজশাহী। ফোন: ০১৯২৭-৩৬২৩৭৩, ই-মেইল: banglarkotha.news@gmail.com